বরিশালের রায়পাশা-কড়াপুর ইউপিতে জিএস বাবুকে আ.লীগের প্রার্থী হিসেবে চান নেতা-কর্মীরা

মার্চ ১০ ২০২১, ১৪:২৬

Spread the love

বরিশাল সদর উপজেলার ১ নং রায়পাশা কড়াপুর ইউনিয়ন জনগণের প্রত্যাশা পূরণে অত্র ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক, বিশিষ্ট সমাজসেবক, শিক্ষানুরাগী, বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক দল-মত-নির্বিশেষে সকলের আস্থাভাজন আওয়ামীলীগের নৌকার প্রতীকে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী মোঃ আহম্মেদ শাহরিয়ার বাবু কে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় ইউনিয়নবাসী।

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চায়ের দোকান থেকে শুরু করে পাড়া মহল্লায় সর্বত্র এখন নির্বাচনী আমেজ। দলমত নির্বিশেষে ইউনিয়নের ভোটারদের মুখে মুখে তার নাম শোনা যায়।
এলাকার একাধিক প্রবীণ ত্যাগী আওয়ামীলীগ কর্মীরা বলেন, সে খুব ভদ্র ছেলে, আমরা তার মধ্যে আগামীর ভবিষ্যত দেখতে পাই তাকে রায়পাশা কড়াপুর ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দিলে তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে নিজেকে উৎসর্গ করবেন আমাদের বিশ্বাস।

জানা যায়,,করোনাকালিন সময়ে আহম্মেদ শাহরিয়ার বাবু নিজ অর্থায়নে সাহায্য সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন এবং শীতার্তদের মাঝে গোপনে কম্বল বিতরন ও সাহায্য সহযোগীতা অব্যাহত রেখেছিলেন। তিনি মসজিদ মাদ্রসা ও ধর্মীয় কাজে ও গরিব দুঃখি অসহায় পরিবারের মাঝে গোপনে মেয়ের বিয়েতে সাহায্য সহযোগিতা করেন। তিনি ছাত্র জীবন থেকে ছাত্রলীগ ও আওয়ামী রাজনীতির সাথে নিজেকে অব্যাহত রেখেছেন সুনামের সহিত।

তার নিজ অর্থায়নে এলাকার দরিদ্র ও অসহায় মানুষকে আর্থিক সাহায্য প্রদান করেছেন।
এমনকি একাধিক নতুন ভোটার বলেন, আমাদের তরুনদের আইডল বাবু ভাই। আমরা মনে করি মোঃ আহম্মেদ শাহরিয়ার ভাই‌ কে আওয়ামীলীগ থেকে এবারের নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন দিলে তিনি বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবেন।

সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে মোঃ আহম্মেদ শাহরিয়ার বাবু জানান আমি ১৯৯১ সালে সরকারি হাতেমআলী কলেজের ছাত্রসংসদের জিএস ছিলাম, দীর্ঘদিন ধরে তিনি দলের জন্য কাজ করে চলেছেন। সব কিছু বিবেচনা করে দল যদি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দেয় তবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে রায়পাশা কড়াপুর ইউনিয়নের যুব সমাজকে লেখাপড়ায় মনোযোগী ও খেলাধুলায় আগ্রহী করে তুলেছেন। মাদক ও নেশা থেকে যুব সমাজকে দূরে রাখার জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহন করবেন। ত ইউনিয়নবাসীর পাশে থেকে তাদের বিভিন্ন সরকারি সাহায্য সরকারী সেবা ইউনিয়নবাসীর দ্বারপ্রান্তে পৌছে দিবেন এবং গরীব অসহায় মানুষের পাশে থেকে উন্নয়ন কর্মকান্ড চালিয়ে যাবেন বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।তিনি নিজ ইউনিয়নবাসীসহ সর্বস্তরের জনগনের কাছে দোয়া চেয়েছেন।