মাফিয়া ডন দাউদের মৃত্যু পাকিস্তানি সেনাদের হাতে ॥ করোনা নয়

জুন ০৮ ২০২০, ০৯:১৪

Spread the love

 

অনলাইন ডেস্ক ॥ মাফিয়া ডন দাউদ ইব্রাহিম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বলে দু’দিন ধরে খবর ঘুরছে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে। বিষয়টির সত্যতা এখনও নিশ্চিত হয়নি, এর মধ্যেই এলো নতুন খবর- দাউদ করোনায় নয়, বরং প্রাণ হারিয়েছেন পাকিস্তানি সেনাদের বিষাক্ত ইনজেকশনে।

আজ সোমবার আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, গত রোববার লন্ডনভিত্তিক একটি সংবাদমাধ্যম ভারতীয় গোয়েন্দা সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে দাউদ ইব্রাহিমের মৃত্যুর এ তথ্য জানিয়েছে।

লন্ডনের ওই পত্রিকাটি বলছে, কয়েক মাস আগে করাচিতে কঠোর নিরাপত্তার মধ্যেই মাফিয়া ডনের আড্ডায় এই অভিযান চালিয়েছিল পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর চিকিৎসক শাখা। হঠাৎ করেই একের পর এক অঙ্গ বিকল হয়ে দাউদের মৃত্যু হয়েছে। এ থেকে ধারণা করা হচ্ছে— কোনও বিষাক্ত রাসায়নিক প্রয়োগ করা হয়েছিল তার শরীরে।

সংবাদমাধ্যমটির দাবি, ২০১৭ সাল থেকে দাউদকে হত্যায় তৎপর হয় পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর একাংশ। মূলত মার্কিন চাপেই এটি করেছে তারা। বহু মার্কিন নাগরিককে হত্যায় অভিযুক্ত দাউদ ইব্রাহিমকে করাচি-ছাড়া করতে পাকিস্তানের ওপরে চাপ দিচ্ছিল যুক্তরাষ্ট্র। এতে সহযোগিতা করছিল ভারতও।

অ্যাবোটাবাদে মার্কিন অভিযানে ওসামা বিন লাদেনের মৃ্ত্যুতে পাকিস্তানের ভাবমূর্তি যেভাবে ধাক্কা খেয়েছিল, তার পুনরাবৃত্তি চায়নি বলেই দেশটি দাউদের হাত থেকে ‘নিষ্কৃতির’ পরিকল্পনা করেছিল বলে গোয়েন্দা সূত্র লন্ডনের সংবাদপত্রটিকে জানিয়েছে।

গত শনিবার আন্ডারওয়ার্ল্ড ডনের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ার পরপরই তার ভাই আনিস ইব্রাহিম ভারতীয় কয়েকটি সংবাদমাধ্যকে ছোট বার্তা পাঠিয়ে জানান, ‘ভাই’ (দাউদ) এবং তার ডান হাত ছোটা শাকিল সুস্থ রয়েছেন।

তবে লন্ডনের সংবাদমাধ্যমটির দাবি, পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই’র নির্দেশেই আনিস এই বার্তা পাঠিয়েছে। কারণ দাউদের পরিবারকে তার মৃত্যুসংবাদ অস্বীকার করার নির্দেশ দিয়েছে আইএসআই।